কোটা আন্দোলনের তিন সমন্বয়কারীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে পুলিশ। রোববার (৭ জুলাই) সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে পুলিশের উপরমহল থেকে শিক্ষার্থীদের বৈঠকে ডাকা হয়।

শিক্ষার্থীদের পক্ষে আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম, হাসনাত আব্দুল্লাহ ও সারজিস আলম প্রতিনিধি হিসেবে বৈঠকে গিয়েছেন। তবে উপরমহলের কারা বৈঠক ডেকেছেন, তা এখনো জানা যায়নি।

এদিকে বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে অবরোধ তুলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের কেন্দ্র শাহবাগ আসতে শুরু করেছেন।

বিকেল ৬টার দিকে আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাত ৮টার দিকে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবে তারা। আর দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা সড়ক ছাড়বেন না তারা। আন্দোলন চলাকালে কোনো যানবাহন চলাচল করতেও দেওয়া হবে না।

তবে জরুরি কাজে যেসব গাড়ি চলাচল করছে সেগুলোকে বিশেষ ছাড় দেওয়া হবে। এর আগে প্রায় ৪ ঘণ্টা যাবত ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো অবরোধ করে রাখেন তারা।

আন্দোলনের সমন্বয়ক হাসিব-আল-ইসলাম বলেন, আমাদের সব ইউনিটকে শাহবাগে আসতে বলেছি। আমরা এখানেই অবস্থান নেব।

সরকারি চাকরিতে বেতন কাঠামোর ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে (আগের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির) মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত বহালে উচ্চ আদালতের রায়ের প্রতিবাদে এবং ২০১৮ সালের পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশীদের পক্ষ থেকে ঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির কারণে রাজধানী ঢাকায় এক অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

সূত্রঃ নিউজ২৪