কয়েক দিন আগেই ৮০তম গোল্ডেন গ্লোবের মনোনয়ন ঘোষণা হয়েছে। যেখানে দুই ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পেয়েছে এস এস রাজামৌলির ‘আরআরআর’।

চলতি বছর মুক্তির পর বলিউডের মতো হলিউডেও ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয় সিনেমাটি। তখনই অনেক বিশ্লেষক আন্দাজ করেছিলেন, পুরস্কার অনুষ্ঠানগুলোয় মনোনয়ন পাবে এটি। সেটিই হচ্ছে।

গোল্ডেন গ্লোবের পর এবার ক্রিটিক চয়েস অ্যাওয়ার্ডসেও মনোনয়ন পেল সিনেমাটি। চমক জাগিয়ে পাঁচটি বিভাগে জায়গা করে নেয় ভারতীয় এ সিনেমা। এবার অস্কারের মঞ্চে এন্ট্রি পেয়ে গেল আরআরআর।

সেরা সিনেমা, সেরা পরিচালক, সেরা অভিনেতা, সেরা সহ অভিনেতা, সেরা সহ অভিনেত্রী-সহ নানা বিভাগের জন্য আবেদন জমা দেওয়া হলেও এসএস রাজামৌলির সিনেমা অস্কারে নমিনেশন পেল ‘বেস্ট সং’ বিভাগে নাটু নাটু গানটির জন্য। এই সিনেমাতে মুখ্য ভূমিকায় রাম চরণ এবং জুনিয়র এনটিআরকে দেখা গিয়েছিল। ছিলেন আলিয়া ভাট আর অজয় দেবগনও।

অস্কারে মনোনয়ন

বেস্ট ডকুমেন্টরি ক্যাটাগরিতে নমিনেশন পেয়েছে আরও একটি ভারতীয় সিনেমা ‘অল দ্যাট ব্রিদস’। এর পরিচালক শৌনক সেন। দিল্লির প্রেক্ষাপটে তৈরি এই সিনেমা ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সম্মান ভরেছে নিজের ঝুলিতে।

অন্যদিকে, পরিচালক পাল নলিনের ‘ছেল্লো শো’ ২০২৩ সালের অস্কার পুরস্কারের আন্তর্জাতিক ফিচার ছবি বিভাগের জন্য ভারত থেকে মনোনীত হয়েছে। ভারতীয় সিনেমার সেলুলয়েড থেকে ডিজিটালে আসার পথই এই সিনেমার বিষয়বস্তু। এর মুখ্য চরিত্র ৯ বছরের এক বালক, যার জীবন পুরোপুরি বদলে যায় প্রথমবার সিনেমা দেখার পর।

বলা যায়, অস্কারের মঞ্চে লড়াইটা ভারত এবার বেশ জমিয়েই করবে। ২০২৩-এর মার্চ মাসে বসবে অস্কারের জমকালো আসর।

চলচ্চিত্র জগতে সবচেয়ে সম্মানীয় পুরস্কার হিসেবে ধরা হয় অস্কারকে। যদিও ২৪ জানুয়ারি নমিনেশনের অফিসিয়াল অ্যানাউন্সমেন্ট হওয়ার কথা রয়েছে, তবে সামনে এসেছে ১০টি বিভাগের নমিনেশন তালিকা। যার মধ্যে রয়েছে আন্তর্জাতিক ফিচার সিনেমা, ডকুমেন্টারি, সাউন্ড, অরিজিনাল স্কোর, অরিজিনাল সং, মেকআপ অ্যান্ড হেয়ারস্টাইলিং, ভিস্যুয়াল অফেক্টস, অ্যানিমেটেড শর্ট ফিল্মের মতো ক্যাটাগরি। আর এতে ভারতের উপস্থিতি বেশ উজ্জ্বল।